মনসামঙ্গল কাব্য – শেষ পর্ব

মনসামঙ্গল কাব্য  নিয়ে টার্গেট বাংলা ফেসবুক গ্রুপে যে গ্রুপ ডিসকাশন হয়েছিল তা থেকে উঠে আসা নানা প্রশ্নোত্তর নিয়ে আমাদের এই আলোচনা। আজ শেষ পর্ব। আশা করি, সকলের উপকারে লাগবে এই পোষ্ট।

প্রশ্নোত্তর পর্ব

৬১] কালিদাস (সপ্তদশ শতক) যে মঙ্গল কাব্যের কবি ?

উঃ মনসামঙ্গল  কাব্য।

৬২] পূর্ববঙ্গের কাব্য গুলি কি নামে পরিচিত ?

উঃ পদ্মপুরাণ

৬৩] “সনাতন তনয় রুক্মিনী গর্ভজাত” কোন কবি তাঁর সম্পর্কে এ কথা বলেছেন?

উঃ বিজয় গুপ্ত

৬৪] কোন্ কবি মনসামঙ্গল ও ধর্মমঙ্গল এই দুটি মঙ্গল কাব্য রচনা করেছিলেন ?

উঃ সীতারাম দাস

৬৫] বিজয় গুপ্তের “পদ্মাপুরাণ” কোথা থেকে মুদ্রিত হয় ?

উঃ বরিশাল – ১৩০৩ বঙ্গাব্দ

৬৬] মনসামঙ্গল কাব্যের অষ্টাদশ শতাব্দীর কয়েকজন কবির নাম বল ?

উঃ জীবন মৈত্র, ষষ্ঠীবর দত্ত, বিষ্ণু পাল

৬৭] বিজয় গুপ্তের পদ্মাপুরাণ কে প্রকাশ করেন ?

উঃ প্যারীমোহন সেন বরিশাল থেকে

৬৮] শিবের পিতা কে ?

উঃ ধর্ম

৬৯] কে চাঁদ সওদাগর ও বেহুলা – লখিন্দরকে কেন্দ্র করে দৈব লাঞ্ছিত হতভাগ্য মানুষের সংগ্রাম চেতনার এক অনন্য রূপকার হতে পেরেছিলেন ?

উঃ কানা হরিদত্ত

৭০] ঋতুশূন্য বেদ শশী পরিমিত শক / সুলতান হুসেন রাজা পৃথিবী পালক।। এটি কার কাব্যের উদ্ধৃতি ?

উঃ বিজয় গুপ্ত

৭১] দ্বিজ বংশীদাসের মাতার নাম কী ?

উঃ অঞ্জনা

৭২] ঝাপান কি ? এখন কোথায় প্রচলিত আছে ?

উঃ মনসার মাহাত্ম্য বিষয়ক গান। বাঁকুড়া, পুরুলিয়াতে এখনও প্রচলিত আছে

৭৩] তন্ত্রবিভূতি কোথাকার কবি?

উঃ উওরবঙ্গের কবি

৭৪] মনসামঙ্গল কাব্য সাপের ওঝার কি নাম ?

উঃ ধন্বন্তরি ওঝা

৭৫] কার রচিত মনসামঙ্গল প্রথম মুদ্রিত হয় ? কত খিস্টাব্দে ?

উঃ কেতকাদাস ক্ষেমানন্দ। ১৮৪৪ খ্রিস্টাব্দে এটি মুদ্রিত হয়

৭৬] কোন কবির মনসামংগল কাব্যে চাঁদ সদাগরের ইষ্টদেবতা দেবী চন্ডী ?

উঃ দ্বিজ বংশীদাস

৭৭] ‘ভাসানের গান শুনে কতবার ঘর আর খড় গেল ভেসে’ – মন্তব্যটি কে করেছেন ?

উঃ জীবনানন্দ দাশ

৭৮] মনসা চঁদের কোন বন ধ্বংস করেছিল ?

উঃ নকড়া বন

৭৯] ধ্বনন্তরি ওঝা কোন সাপের কামড়ে মারা যায় ?

উঃ উদয়কাল

৮০] মনসামঙ্গলের রস কি ?

উঃ বীর ও করুণ রস

৮১] মনসার বোনের নাম কি ?

উঃ নেতা

৮২] বেহুলা কোন পাখির মাধ্যমে পিত্রালয়ে সংবাদ পাঠিয়েছিলেন ?

উঃ শ্বেতকাক

৮৩] প্রাচীন গ্রীসের সর্প দেবীর নাম কী ?

উঃ মেডুসা

৮৪] আদিম মানবতার কবি কে কাকে বলেছেন ?

উঃ ভূদেব চৌধুরী বলেছেন নারায়ণ দেবকে

৮৫] “মনসার ভাসানের ভাষাতত্ত্ব সুললিত বা সুশ্রাব্য নহে…” – কে কার কোন কাব্য সম্পর্কে বলেছেন?

উঃ রামগতি ন্যায়রত্ন। কেতকদাসের ক্ষেমানন্দের “মনসামঙ্গল” সম্পর্কে

৮৬] মনসামঙ্গল কাব্যের কতজন কবির নাম জানা যায় ?

উঃ ৬২

৮৭] মনসা শব্দের অর্থ কি ?

উঃ মানসজাত কন্যা

৮৮] দ্বিজ বংশীদাস এর পদ্মাপুরাণ কত সালে মুদ্রণ সৌভাগ্য লাভ করে ?

উঃ ১৩১৮ বঙ্গাব্দ

৮৯] বর্তমানে বিজয় গুপ্তের কাব্যটি কোথায় সংরক্ষিত রয়েছে ?

উঃ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

৯০] বিপ্রদাসের কাব্যের বিশেষ উল্লেখযোগ্য বিষয় কী ছিল ?

উঃ বিপ্রদাসের কাব্যের বিশেষ উল্লেখযোগ্য বিষয় হল চাঁদ সদাগরের বাণিজ্যযাত্রা পথের বিস্তারিত বিবরণ। এই বিবরণ থেকে তৎকালীন সপ্তগ্রাম এবং হুগলি-সরস্বতী নদীর নিম্ন অববাহিকার একটি স্পষ্ট চিত্র পাওয়া যায়। খড়দহ, চুচুড়া, কলিকাতা, দেগঙ্গা, কোন্নগর, নৈহাটি প্রভৃতি নদী বন্দরের নাম তার কাব্যে উল্লিখিত হয়েছে

আরো পড়ুন

৯১] কেতকা দাসের মনসামঙ্গল কটি খন্ডে বিভক্ত ?

উঃ ৫

৯২] মধ্য যুগের কোন্ সাহিত্য কে Product of the soil”–বলা হয় ?

উঃ মঙ্গলকাব্য কে

৯৩] “বাংলার মঙ্গল কাব্যের বিষয়টা হচ্ছে এক দেবতাকে তার সিংহাসন থেকে খেদিয়ে দিয়ে আরেক দেবতার অভ্যুদয়” – কে বলেছেন ?

উঃ রবীন্দ্রনাথ

৯৪] জাগরণ পালা কার লেখা ?

উঃ  দ্বিজ বংশীদাস

৯৫] ‛সুকবি বল্লভ নারায়ণ’ ভণিতাটি শ্রীহট্রীয় উপভাষায় কিসে পরিণত হয়েছে ?

উঃ সুকনান্নিতে

৯৬] মনসা মূলগত ভাবে কোন শ্রেণির দেবী ?

উঃ অনার্য

৯৭] “চৌতিশা”য় কোন ব্যঞ্জনবর্ণ থেকে কোন ব্যঞ্জনবর্ণ পর্যন্ত প্রত্যেকটি বর্ণকে আদ্যবর্ণ রূপে ব্যবহার করা হয় ?

উঃ ক- হ

৯৮] মনসামঙ্গলের কোন কবির কাব্য আসামেও বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছিল ?

উঃ নারায়ণ দেব

৯৯] চ্যাং মুড়ি কানী কার নাম ?

উঃ মনসা

১০০] বেহুলা মৃত স্বামীর শব কোলে নিয়ে কতমাস ভেলায় ছিলেন ?

উঃ ছয় মাস

১০১] প্রাচীন গ্রীসের সর্প দেবীর নাম কী ?

উঃ মেডুসা

১০২] ‘ক্ষেমানন্দ নাম আর কেতকাদাস উপাধি’  এটি কে মনে করেন ?

উঃ দ্বিজ কবিচন্দ্র

১০৩] মনসামঙ্গল কবি রসিক মিত্রের কি উপাধি ছিল ?

উঃ শ্রী কবিবল্লভ

১০৪] ক্ষেমানন্দ কোন রাগে মনসার বন্দনা গান করেন ?

উঃ সুইরাগ

১০৫] কে মনসামঙ্গল কাব্যের আখ্যানভাগটিকে “রামায়ণ-মহাভারত-পুরাণ-নিরপেক্ষ একটি স্বাধীন লৌকিক কাহিনী” বলে বর্ণনা করেছেন ?

উঃ বিশিষ্ট মঙ্গলকাব্য বিশারদ আশুতোষ ভট্টাচার্য

১০৬] পশ্চিমে ঘাঘর নদী পূর্বে ঘণ্ডেশ্বর। মধ্যে ফুল্লশ্রী গ্রাম পণ্ডিত নগর।।” — কাব্যের সূচনায় লিখিত এই আত্মকাহিনীটি কার ?

উঃ বিজয় গুপ্ত

১০৭] “জাঙ্গুলী তারা” নামক দেবীর কথা কোন ধর্মসম্প্রদায়ের মধ্যে আছে ?

উঃ বৌদ্ধ

১০৮] কোন কবি মনসাকে ব্রাহ্মণী তোতল নামে উল্লেখ করেছেন ?

উঃ তন্ত্রবিভূতি

১০৯] ‘গুগা’ কোন্ অঞ্চলের সর্প দেবতা ?

উঃ পশ্চিম-হিমালয়।

১১০] মনসা মঙ্গলের কোন কবি নিজের মঙ্গলকাব্যকে “ব্রত গীত”-বলেছেন ?

উঃ বিপ্রদাস পিপলাই নিজের মনসা মঙ্গল কাব্য কে “ব্রত গীত”বলেছেন।

১১১] নেতার জন্ম কোথা থেকে হয়েছিল ?

উঃ শিবের তৃতীয় নেত্র বিন্দু থেকে

১১২] আসামে কার কাব্য অধিক প্রচলিত ?

উঃ নারায়ণ দেব

১১৩] আধুনিক কালে মনসামঙ্গল অবলম্বনে কে নাটক রচনা করেন ?

উঃ শম্ভু মিত্র

১১৪] কেতকাদাসের কাব্য অনুসারে কে মনসাকে নির্মাণ করেছে ?

উঃ বিধাতা

১১৫] ঊষার প্রিয় সখি কে ছিল ?

উঃ চিত্রলেখা

১১৬] বিজয়গুপ্তের ছদ্মনাম ?

উঃ রাধানাথ

১১৭] তন্ত্রবিভূতির কাব্যের পুঁথি কে কোথা থেকে আবিষ্কার করেন ?

উঃ মালদহ থেকে

১১৯] মনসামঙ্গলের দেবী প্রথমে কোন শ্রেণীর মানুষের কাছে পূজা প্রচার করে?

উঃ নিম্নবগীয় মানুষের কাছে, যেমন – জেলে, কৃষক, রাখাল

বেহুলা কোন পাখির মাধ্যমে পিত্রালয়ে সংবাদ পাঠিয়েছিলেন ?

উঃ শ্বেতকাক

১২০] মনসামঙ্গলের প্রধান কবি, কাব্যের নাম ও রচনাকাল

১) কানা হরিদত্ত – “কালিকাপুরাণ” / “মনসামঙ্গল” – পঞ্চদশ শতক ।

২) বিজয় গুপ্ত – “পদ্মপুরাণ” – পঞ্চদশ শতক ।

৩) নারায়ণ দেব – “পদ্মপুরাণ ” – পঞ্চদশ শতক ।

৪) বিপ্রদাস পিপিলাই – “মনসাবিজয়” – পঞ্চদশ শতক ।

৫) ষষ্ঠীধর দত্ত – “পদ্মপুরাণ ” – ষোড়শ শতক ।

৬) তন্ত্রবিভূতি – “মনসাপুরাণ” – সপ্তদশ শতক ।

৭) কেতকাদাস ক্ষেমানন্দ – “ক্ষেমানন্দী” – সপ্তদশ শতক ।

৮) জগজ্জীবন ঘোষাল – “মনসামঙ্গল ” – অষ্টাদশ শতক।

সকলকে ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − three =