বিদ্যাসাগরের প্রবন্ধ – শেষ পর্ব

বিদ্যাসাগরের প্রবন্ধ এবং সমকাল নিয়ে টার্গেট বাংলা ফেসবুক গ্রুপে যে গ্রুপ ডিসকাশন হয়েছিল তা থেকে উঠে আসা নানা প্রশ্নোত্তর নিয়ে আমাদের এই আলোচনা। আজ শেষ পর্ব। আশা করি, সকলের উপকারে লাগবে এই পোষ্ট।

প্রশ্নোত্তর পর্ব

৫১] গদ্য লেখা “পুষ্পাজ্ঞলি” কার রচনা ?

উঃ  ভূদেব মুখোপাধ্যায়

৫২] কার স্মৃতিকথার নাম ‘আত্মচরিত’?

উঃ রাজনারায়ণ বসু।

৫৩] কে বিদ্যাসাগরকে Heart of Bengali Mother বলেছিলেন –

উঃ  মধুসূধন

৫৪] বাঙালির লেখা সংস্কৃত সাহিত্যের প্রথম  ইতিহাস কোন টি  ?

উঃ সংস্কৃত ভাষা ও সংস্কৃত সাহিত্যশাস্ত্র বিষয়ক প্রস্তাব

৫৫] বিদ্যাসাগরের ছদ্মনাম গুলি বলো ।

উঃ কস্যচিৎ উপযুক্ত ভাইপোস্য এবং কস্যচিৎ উপযুক্ত ভাইপো সহচরস্য

৫৬] বিদ্যাসাগরের অনুবাদ কর্ম –

উঃ বাঙ্গালার ইতিহাস (১৮৪৮ ; মার্শম্যান কৃত হিস্ট্রি অফ বেঙ্গল অবলম্বনে রচিত)

জীবনচরিত (১৮৪৯ ; চেম্বার্সের বায়োগ্রাফিজ অবলম্বনে রচিত)

নীতিবোধ (প্রথম সাতটি প্রস্তাব – ১৮৫১ ; রবার্ট ও উইলিয়াম চেম্বার্সের মরাল ক্লাস বুক অবলম্বনে রচিত)

বোধোদয় (১৮৫১ ; চেম্বার্সের রুডিমেন্টস অফ নলেজ অবলম্বনে রচিত)

কথামালা (১৮৫৬ ; ঈশপস ফেবলস অবলম্বনে রচিত)

চরিতাবলী (১৮৫৭ ; বিভিন্ন ইংরেজি গ্রন্থ ও পত্র পত্রিকা অবলম্বনে রচিত)

ভ্রান্তিবিলাস (১৮৬১ ; শেক্সপিয়রের কমেডি অফ এররস অবলম্বনে রচিত)

৫৭] বিদ্যাসাগরের “বিদ্যাসাগর” উপাধিটি কোথায় লেখা ছিল ?

উঃ ল কমিটির প্রসংশা পত্রে৷

৫৮] বিদ্যাসাগর কত সালে সংস্কৃত কলেজের অধ্যাপক হন ?

উঃ ১৮৫০ খ্রিঃ

৫৯] বিদ্যাসাগরের অনুবাদ গ্রন্থ – হিন্দি থেকে বাংলা

বেতাল পঞ্চবিংশতি (১৮৪৭ ; লল্লুলাল কৃত বেতাল পচ্চীসী অবলম্বনে]

সংস্কৃত থেকে বাংলা

শকুন্তলা (ডিসেম্বর, ১৮৫৪ ; কালিদাসের অভিজ্ঞানশকুন্তলম্ অবলম্বনে)

সীতার বনবাস (১৮৬০ ; ভবভূতির উত্তর রামচরিত ও বাল্মীকি রামায়ণ-এর উত্তরাকান্ড অবলম্বনে)

মহাভারতের উপক্রমণিকা (১৮৬০ ; ব্যাসদেব মূল মহাভারত-এর উপক্রমণিকা অংশ অবলম্বনে)

বামনাখ্যানম্ (১৮৭৩ ; মধুসূদন তর্কপঞ্চানন রচিত ১১৭টি শ্লোকের অনুবাদ)

৬০] ”বাঙ্গালার ইতিহাস” গ্রন্থটি – কে, কত সালে রচনা করেন ?

উঃ ১৮৪৮

৬১] বিদ্যাসাগর এর দুজন জীবনীকারের নাম করো

উঃ বিহারীলাল সরকার ও চন্ডীচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

৬২] কবে ঈশ্বরচন্দ্রকে “বিদ্যাসাগর” উপাধি প্রদান করা হয়েছিল ?

উঃ ১৮৪১

৬৩] তাঁর নামের সঙ্গে ‘বিদ্যাসাগর’  উপাধিটি প্রথম ব্যবহৃত হয় কবে কোথায় ?

উঃ ১৮৩৯ সালের ২২ এপ্রিল হিন্দু ল কমিটির পরীক্ষা দেন ঈশ্বরচন্দ্র। এই পরীক্ষাতেও যথারীতি কৃতিত্বের সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়ে ১৬ মে “ল কমিটি”র কাছ থেকে যে প্রশংসাপত্রটি পান, তাতেই প্রথম তাঁর নামের সঙ্গে ‘বিদ্যাসাগর’ উপাধিটি ব্যবহৃত হয়।

৬৪] চেম্বার্সের “মোরাল ক্লাস বুক” অবলম্বনে বিদ্যাসাগর কোন গ্রন্থ রচনা করেন ?

উঃ নীতিবোধ

৬৫] “জীবনচরিত” কোন গ্রন্থের অনুবাদ ? ?

উঃ …. Exemplary Biography

৬৬] “বিদ্যাসাগর চরিত ” গ্রন্থটি কে প্রকাশ করেন ?

উঃ বিদ্যাসাগরের পুত্র নারায়ন চন্দ্র বিদ্যারত্ন৷

৬৭] “বিদ্যাসাগরের আগে বাংলা গদ্যের চল ছিল চাল ছিল না” – এ মন্তব্য কে করেন ?

উঃ সুকুমার সেন

৬৮] ‘প্রভাবতী সম্ভাষন’ – এর প্রভাবতীর পরিচয় দাও ?

উঃ রাজকৃষ্ণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কন্যা

৬৯] ভূদেবের ‘পারিবারিক প্রবন্ধ’ রচনার পরে কে তাঁর চিঠিতে ভূদেবকে লিখেছিলেন “The highest kind of poetry is the highest wisdom ” ?

উঃ বঙ্কিমচন্দ্র

৭০] “এরূপ উচ্চ অঙ্গের রসিকতা বাঙ্গালা ভাষায় অতি অল্পই আছে” – বিদ্যাসাগরের গ্রন্থ সম্বন্ধে এই মন্তব্য কে করেছিলেন ?

উঃ কৃষ্ণকমল ভট্টাচার্য

৭১] কাদম্বরী গদ্যগ্রন্থটি কার লেখা ?

উঃ তারাশংকর তর্করত্ন

৭২] “বাল্যবিবাহের দোষ” প্রবন্ধটি কোন পত্রিকায় প্রকাশিত হয় ?

উঃ সর্বশুভকরি

৭৩] “…. the energy of an Englishman and the heart of a bengali mother” – বিদ্যাসাগর সম্পর্কে এ কথা কে বলেছেন ?

উঃ মধুসূদন দও

৭৪] বাংলা গদ্যে বিদ্যাসাগরের প্রধানতম অবদান কি ?

উঃ বিরাম চিহ্ন ও যতি সন্নিবেশ

৭৫]” ভারতবর্ষীয় উপাসক সম্প্রদায়” কার লেখা  ?

উঃ অক্ষয়কুমার দও

আরো পড়ুন

৭৬] ক্রিয়া পদের শেষে অনাবশ্যক ‘ক’ এর ব্যবহার চালু করেন ?

উঃ বিদ্যাসাগর

৭৭] “আখ্যানমঞ্জুরী”-গ্রন্থটি কার, প্রকাশকাল কত ?

উঃ বিদ্যাসাগর ১৮৬৩

৭৮] চেম্বার্সের ‘Rudiments of knowledge’ – কে ভিত্তি করে বিদ্যাসাগর  কোন গ্রন্থ রচনা করেন ?

উঃ বোধোদয়

৭৯] কত সালে বর্ণপরিচয় রচিত হয়  ?

উঃ ১৮৫৫

৮০] কস্যচিৎ উপযুক্ত ভাইপো সহচরস্য ছদ্মনামে বিদ্যাসাগর কোন গ্রন্থটি রচনা করেন ? ? ?

উঃ  “রত্নপরীক্ষা”

৮১] মধুসূদন বিদ্যাসাগরকে উৎসর্গ করেন কোন কাব্য

উঃ “বীরাঙ্গনা”

৮২] বীরসিংহ বর্তমানে কোথায় অবস্থিত  ?

উঃ পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটাল মহুকুমায় অবস্থিত

৮৩] ‘ব্রাহ্মধর্মগ্রন্থ’ ও ‘আত্মতত্ত্ববিদ্যা’ গ্রন্থদুটির রচয়িতা ও প্রকাশকাল বলো৷

উঃ সালগুলি যথাক্রমে ১৮৫০ এবং ১৮৫২৷

৮৪] নবীনচন্দ্র বিদ্যাসাগরকে উৎসর্গ করেন কোন কাব্য ?

উঃ পলাশীর যুদ্ধ

৮৫] ‘Age of reason’, এবং ‘Rights of man’ এর যুগে জন্মগ্রহণ করেন কে ?

উঃ বিদ্যাসাগর

৮৬] প্রাবন্ধিক হিসাবে বিদাসাগর কাকে অনুসরণ করেছিলেন ?

উঃ রামমোহন রায়

৮৭] বিদ্যাসাগরের আসল নাম কী  ?

উঃ ঈশ্বরচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়

৮৮] সীতার বনবাস কোন গ্রন্থের অনুসরণে লেখা ?

উঃ বাল্মীকি রামায়ণের উত্তর কাণ্ড এবং ভবভূতির উত্তর রামচরিত

৮৯] পল্লীগ্রামস্থ প্রজাদের দুরবস্থা বর্ণন’ – কার লেখা ?

উঃ অক্ষয়কুমার দও

৯০] কী অবলম্বনে বিদ‍্যাসাগর “বাসুদেব চরিত” লিখেছিলেন ?

উঃ ভগবতের কৃষ্ণলীলা

৯১] মার্শম্যানের “History of bengal” এর বিদ্যাসাগরকৃত অনুবাদ প্রথম কবে প্রকাশিত হয় ?

উঃ ১৮৪৮

৯২] গোপাল রাখালের গল্প  বিদ্যাসাগরের কোন বইতে আছে ?

উঃ কথামালা

৯৩] বিদ্যাসাগরের বাংলা অভিধানের নাম কী ?

উঃ শব্দমঞ্জরী

৯৪] বিদ্যাসাগরের শেষগ্রন্থ কী ?

উঃ বিদ্যাসাগর চরিত

৯৫] বিদ্যাসাগরের একটি কাহিনি নির্ভর গদ্যগ্রন্থের নাম লেখ ।

উঃ শকুন্তলা

৯৬] ‘বিদ্যাসাগরের প্রধানকীর্তি বঙ্গভাষা’ – মন্তব্যটি কার

উঃ রবীন্দ্রনাথ

৯৭] বিদ্যাসাগরের মৃত্যু তারিখ কত ?

উঃ ২৯. ০৭. ১৮৯১

৯৮] মহাভারতের উপক্রমণিকা কোন পত্রিকায় বের হয় ?

উঃ তত্ত্ববোধিনী

৯৯] শব্দমঞ্জরী কোন শ্রেনীর রচনা ?

উত্তর- এটি প্রয়োগার্থ অভিধান

১০০] বিদ্যাসাগরের মৌলিক গ্রন্থ কি ?

উঃ     সংস্কৃত ভাষা ও সংস্কৃত সাহিত্য বিষয়ক প্রস্তাব (১৮৫৩)

বিধবা বিবাহ চলিত হওয়া উচিত কিনা এতদ্বিষয়ক প্রস্তাব (১৮৫৫)

বহুবিবাহ রহিত হওয়া উচিত কিনা এতদ্বিষয়ক প্রস্তাব (১৮৭১)

অতি অল্প হইল (১৮৭৩০

আবার অতি অল্প হইল (১৮৭৩)

ব্রজবিলাস (১৮৮৪)

রত্নপরীক্ষা (১৮৮৬)

প্রভাবতী সম্ভাষণ (সম্ভবত ১৮৬৩)

জীবন-চরিত (১৮৯১ ; মরণোত্তর প্রকাশিত)

শব্দমঞ্জরী (১৮৬৪)

নিষ্কৃতি লাভের প্রয়াস (১৮৮৮)

ভূগোল খগোল বর্ণনম্ (১৮৯১ ; মরণোত্তর প্রকাশিত)

SSC Class – thanks to all of the participants

160 Comments

Leave a Reply