বিদ্যালয়ে প্রচলিত নানা প্রকল্প কথা

এসএসসি’র ইন্টারভিউয়ে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিদ্যালয়ে প্রচলিত নানা প্রকল্প গুলি। সেই সমস্ত প্রকল্প গুলি সম্পর্কে নানা তথ্য আমাদের জেনে রাখতে হবে। এই পোস্টে বিদ্যালয়ের নানা প্রকল্প নিয়ে আলোকপাত করা হয়েছে।

মিড ডে মিল

শিশুদের বিদ্যালয়মুখী করে তুলতে এবং তাদের শরীরের পুষ্টিগুণ বৃদ্ধি করতে কেন্দ্র সরকার থেকে এই প্রকল্পের সূচনা করে। ১৯৯৫ খ্রিঃ ১৫ই আগষ্ট এই প্রকল্পের সূচনা হয়। যদিও তা কার্যকর করা হয় ১৯৯৭ খ্রিঃ। ২০১০ সালে সর্বশিক্ষা মিশন প্রকল্পের অধীনে শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করার সময়েও এই মিড ডে মিলের উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়। ৬ বছর থেকে ১৪ বছর বয়সী শিশুরা এই প্রকল্পের আওতায় পড়ে। প্রথম শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সমস্ত শিশুদের যাতে পুষ্টিকর খাদ্য সরবরাহ করা হয় সেদিকে জোর দেওয়া হয়েছে। ২০১৫ খ্রিঃ ৩০ শে সেপ্টেম্বর মিড ডে মিলকে পড়ুয়ার অধিকার বলে স্বীকৃতি দেয় কেন্দ্র সরকার।

সর্বশিক্ষা অভিযান

৬ থেকে ১৪ বছর বয়সী সমস্ত শিশুদের আবশ্যিক শিক্ষাদানের লক্ষ্যে ২০০০ খ্রিঃ কেন্দ্রীয় সরকার সর্বশিক্ষা অভিযান প্রকল্পের সূচনা করে। এই প্রকল্পের লক্ষ্য দেশের সমস্ত শিশুকে বিদ্যালয়ে ভর্তি করা। তাদের শিক্ষা নিশ্চিত করা। ২০০৭ সালের মধ্যে সমস্ত শিশু যাতে ৫ বছর ব্যাপী প্রাথমিক শিক্ষা পেতে পারে তার সুব্যবস্থা করা। এবং ২০১০ সালের মধ্যে সমস্ত শিশুর ৮ বছর ব্যাপী নূন্যতম আবশ্যিক শিক্ষার ব্যবস্থা করা। এই প্রকল্পের মূল কথা – ‘Education for all’ বা ‘সবার জন্য শিক্ষা’।

RMSA বা রাষ্ট্রীয় মাধ্যমিক শিক্ষা অভিযান

দেশে শিক্ষার মানকে আরো উন্নত করার লক্ষ্যে ২০০৯ খ্রিঃ RMSA চালু করা হয়, যার পুরো কথা রাষ্ট্রীয় মাধ্যমিক শিক্ষা অভিযান। এই প্রকল্পে বলা হয়, নির্দিষ্ট দূরত্বের মধ্যে মাধ্যমিক বিদ্যালয় গঠন করতে হবে। ৫ বছরের মধ্যে এই প্রকল্পের বাস্তবায়নের কথা বলা হয়। শিক্ষার পথে অন্তরায় হিসেবে লিঙ্গ, সামাজিক বা অর্থনৈতিক বাধা দূর করতে হবে। ২০২০ সালের মধ্যে সার্বজনীন ভাবে শিক্ষার্থীদের মাধ্যমিক শিক্ষার আওতায় নিয়ে আসতে হবে।

মডেল বিদ্যালয় প্রকল্প

২০০৮ খ্রিঃর নভেম্বরে এই প্রকল্পের সূচনা হয়। প্রকল্পটির উদ্দেশ্য গ্রামের প্রতিভাবান শিক্ষার্থীদের যথাযথ মানের শিক্ষা প্রদান করা। এই প্রকল্পে বলা হয়েছে, সঠিকভাবে কাজ করার জন্য দেশের প্রতিটি ব্লকে উপযুক্ত মানের বিদ্যালয় গঠন করতে হবে। সেই সমস্ত বিদ্যালয়ে থাকবে উন্নতমানের পরিকাঠামো। পাঠ্যক্রম এবং মূল্যায়ন ব্যবস্থায় আধুনিকতা আনতে হবে। বিদ্যালয় পরিচালনা থেকে পড়াশোনার মানে তা হবে একটি মডেল।

আলোচক – নীলরতন চট্টোপাধ্যায়, সম্পাদক – SSC Target, SLST Bangla by Progressive Publisher (Kolkata)

1 Comment

Leave a Reply