বঙ্কিমচন্দ্রের প্রবন্ধ – প্রথম পর্ব

বঙ্কিমচন্দ্রের প্রবন্ধ এবং সমকাল নিয়ে টার্গেট বাংলা ফেসবুক গ্রুপে যে গ্রুপ ডিসকাশন হয়েছিল তা থেকে উঠে আসা নানা প্রশ্নোত্তর নিয়ে আমাদের এই আলোচনা। আজ প্রথম পর্ব। আশা করি, সকলের উপকারে লাগবে এই পোষ্ট।

প্রশ্নোত্তর পর্ব

১] কে “এক কলসী”র ছদ্মনামে কমলাকান্ত এর অনুকরণে  সাহিত্য রচনা করেছেন ?

উঃ পরিমল গোস্বামী

২] বঙ্কিমচন্দ্রের প্রবন্ধ রচনার উদ্দেশ্য কী ছিল ?

উঃ বাঙালী জাতির মানসিক ও ঐহিক কল্যাণই ছিল তার প্রবন্ধে রচনার উদ্দেশ্য ।

৩] কে “কমলাকান্ত শর্মা” নাম নিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকায় কমলাকান্ত এর আসর বসিয়ে ছিলেন ?

উঃ প্রমথনাথ বিশী

৪] বঙ্গদর্শন পত্রিকায় কমলাকান্ত এর নামে “চন্দ্রালোকে”, মশক”, স্ত্রীলোকের রূপ” প্রবন্ধ তিনটির রচয়িতা কে

উঃ চন্দ্রালোকে ও মশক – অক্ষয়চন্দ্র সরকার এবং স্ত্রীলোকের রূপ – রাজকৃষ্ণ মুখোপাধ্যায়

৫] “প্রকৃত সমালোচনা খন্ড করে বিশ্লেষণ করা নয়, সৃষ্টি হল আসল কথা “– কে কোন প্রবন্ধে বলেছেন ?

উঃ বঙ্কিমচন্দ্র ‘উত্তরচরিত’ প্রবন্ধে

৬] বঙ্কিমচন্দ্রের প্রথম আত্মপ্রকাশ কি রূপে ?

উঃ কবি রূপে

৭] বঙ্কিমচন্দ্রের বিজ্ঞানধর্মী প্রবন্ধ “বিজ্ঞানরহস্য” (১৮৭৫) তে অন্তর্ভূক্ত প্রবন্ধগুলি হল – ‘আশ্চর্য্য সৌরৎপাত’ , ‘আকাশে কত তারা আছে ?’

উঃ ‘ধূলা’, ‘গগনপর্য্যটন’, ‘চঞ্চল জগৎ’, ‘কতকাল মনুষ্য’, ‘জৈবনিক’, ‘পরিমাণরহস্য’, ‘চন্দ্রলোক’ ।

৮] গৌরদাস বাবাজির ভিক্ষার ঝুলি প্রবন্ধটি কোন গ্রন্থের অন্তর্গত ?

উঃ গীতা

৯] দুটি দেশের নাট্য রীতির ভিন্নতার মধ্যেও ঐক্য অনুসন্ধান করেছেন বঙ্কিমচন্দ্র কোন প্রবন্ধে ?

উঃ “শকুন্তলা মিরন্দা দেসদিমনা”

১০] ‘দি ক্যালকাটা রিভিউ’ পত্রিকায় বেঙ্গলি লিটারেচার নামে একটি প্রবন্ধে মধ্যযুগীয় ও আধুনিক বাংলা সাহিত্যের সংক্ষিপ্ত পরিচয় দিয়েছিলেন। পরে হেস্টিং সাহেবের সঙ্গে লিপিদ্বন্দ্বে তিনি কি ছদ্মনামে ইংরেজ প্রবন্ধসাহিত্য ও বিতর্কে রামমোহনের মতোই কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন ?

উঃ রামচন্দ্র

১১] বঙ্কিমচন্দ্রের সাহিত্য বিষয়ক প্রবন্ধগুলিকে কটি শ্রেণীতে ভাগ করা য়ায় ? কি কি ?

উঃ দুটি – ব্যক্তিধর্মী ও বস্তুধর্মী

১২] ত্রিধারা (১৮৯১) কার প্রবন্ধগ্রন্থ ?

উঃ চন্দ্রনাথ বসু

১৩] ‘কমলাকান্তের দপ্তর’ প্রবন্ধের অন্তর্গত ‘স্ত্রীলোকের রূপ’ নামক নিবন্ধটির রচনাকার কে ?

উঃ রাজকৃষ্ণ মুখোপাধ্যায়

১৪] বঙ্কিমকে “শব পোড়া মরা দাহ” বলে ব্যঙ্গ করার কারন কী ?

উঃ আলালী ও সাগরী রীতির সুসামঞ্জস্য সাধন করেছিলেন বলে৷

১৫] বঙ্কিমচন্দ্র তার প্রবন্ধে ভারতীয় কোন দর্শনের প্রতি অধিক গুরুত্ব দিয়েছেন ?

উ: সাংখ্য দর্শন

১৬] ভগবতগীতা প্রবন্ধটি  কার লেখা ? কত সালে প্রকাশ ?

উঃ বঙ্কিম ১৯০২

১৭] ‘সাম্য’ প্রবন্ধের মুল বিষয় এর সাথে অন্য কোন প্রবন্ধের ( বঙ্কিমচন্দ্রের]প্রায় হুবহু মিল আছে?

উঃ বঙ্গদেশের কৃষক এর ২ ও ৩ নম্বর পরিচ্ছেদ নেওয়া হয়েছে।

১৮] উত্তরচরিত প্রবন্ধটি কোন গ্রন্থের অন্তর্গত ?

উঃ বিবিধ প্রবন্ধে

১৯] লোকশিক্ষা প্রবন্ধ কবে কোথায় প্রকাশিত হয় ?

উঃ ১২৮৫

২০] প্রবন্ধপুস্তকের প্রকাশসাল কত ?

উঃ  ১৮৭৯

২১] ঢেঁকি প্রবন্ধটি কোন প্রবন্ধগ্রন্থের অন্তর্গত ?

উঃ কমলাকান্তের দপ্তর

২২] ‘বঙ্গদেশের কৃষক’ প্রবন্ধে কতগুলি পরিচ্ছেদ আছে ?

উঃ ৪

২৩] বঙ্কিম ছাড়াও ‘কমলাকান্ত’ নামে লেখা লেখি করেছেন কে বা কারা ?

উঃ অক্ষয়চন্দ্র সরকার, প্রমথনাথ বিশী ও রাজকৃষ্ণ মুখোপাধ্যায়।

২৪] ‘ধর্মতত্ত্ব’ এ মানুষের চারটি বৃত্তির কথা বলেছেন, সেগুলি কী কী ?

উঃ শারীরিকি, জ্ঞানার্জনী, কার্যকারিনী ও চিত্তরঞ্জিনী।

২৫] বঙ্কিম সমকালীন দুজন প্রাবন্ধিক কে কে ?

উঃ সঞ্জীবচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ও চন্দ্রনাথ বসু

আরো পড়ুন

২৬] বঙ্কিমচন্দ্রের স্বদেশপ্রেম বিষয়ক একটি প্রবন্ধের নাম ?

উঃ আমার দুর্গোৎসব, একটি গীত

২৭] কমলাকান্তের দপ্তরের চারটি চরিত্রের নাম লেখো।

উঃ কমলাকান্ত, ভীষ্মদেব, নসীরামবাবু, প্রসন্ন গোয়ালিনী

২৮] বঙ্কিমের মতে সৌন্দর্য সৃষ্টির মূল উপাদান কি ?

উঃ স্বভাবানুকারিতা

২৯] ঊনবিংশ শতাব্দীর শেষ দিকে বঙ্কিমের মনোবল যে অদ্ভুত রকমের দৃঢ ছিল তার প্রমান কোন্ গ্রন্থ ?

উঃ সাম্য

৩০] বঙ্কিমের কোন প্রবন্ধকে উপন্যাসের স্কেচ বলা হয় ?

উঃ মুচিরাম গুড়ের জীবন চরিত

৩১] তুলনামূলক সাহিত্যের জন্ম কার হাতে ? সেই প্রবন্ধটির নাম কি?

উঃ শকুন্তলা , মিরান্দা ও দেসডিমনা

৩২] রায় দীনবন্ধু মিত্র বাহাদুরের জীবনী গ্রন্হকারের নাম কি ?

উঃ বঙ্কিম চন্দ্র

৩৩] শকুন্তলা, মিরান্দা, দেসদিমোনা বঙ্কিমচন্দ্রের তুলনামূলক এই প্রবন্ধটি কোন্ প্রবন্ধের অন্তর্গত ?

উঃ বিবিধ প্রবন্ধ

৩৪] বঙ্কিমের সাহিত্য সমালোচনা মূলক প্রবন্ধ কি?

উঃ শকুন্তলা, উত্তরচরিত, ডেসডিমোনা, মিরন্দা

৩৫] ত্রিধারা ১৮৯১ কার প্রবন্ধগ্রন্থ ?

উঃ চন্দ্রনাথ বসু

৩৬] কোন পত্রিকায় বঙ্কিমের প্রবন্ধরচনার সূত্রপাত ?

উঃ সংবাদ প্রভাকর

৩৭] ধর্মতত্ত্ব প্রবন্ধে মোট কতগুলি অধ্যায় আছে?

উঃ ২২

৩৮] কোন রচনার জন্য বঙ্গদর্শন বন্ধ করে দেন ?

উঃ  কৃষ্ণকান্তের উইল

৩৯] “সমাজই শিক্ষাদাতা, সমাজই গুরু “।—কোন প্রবন্ধে বলেছেন ?

উঃ ধর্মতত্ত্ব

৪০] স্বাজাত্যানুরাগ বঙ্কিমচন্দ্রের কোন প্রবন্ধে ব্যক্ত ?

উঃ বাঙ্গালার ইতিহাস

৪১] লোকরহস্য কত সালে প্রকাশিত হয় ?

উঃ ১৮৭৪

৪২] জয়দেব ও বিদ্যাপতি কি জাত্যীয় প্রবন্ধ?

উঃ সাহিত্য ধর্মী প্রবন্ধ

৪৩] বিবিধ প্রবন্ধের প্রথম ও দ্বিতীয় ভাগের প্রকাশ কাল কত?

উঃ ১৮১৭ – ১৮৯২

৪৪] ”সাম্য’ প্রবন্ধ এর বিষয় কি ?

উঃ ব্যাঙ্গাত্মক

৪৫] প্রমথ চৌধুরীর কোন রচনায় “কমলাকান্তের দপ্তর” এর প্রভাব আছে ?

উঃ বীরবলের হালখাতা

৪৬] বাঙ্গালীর ইতিহাস চাই, নহিলে বঙ্গালী কখনো মানুষ হ ইবে না। – যে প্রবন্ধে বঙ্কিম এ মন্তব্য করেন ?

উঃ বঙ্গালার ইতিহাস সম্বন্ধে কয়েকটি কথা

৪৭] কে বঙ্গদর্শনের আবির্ভাবকে আষাঢ়ের প্রথম বর্ষার মতো বলে বর্ণনা করেছেন ?

উঃ রবীন্দ্রনাথ

৪৮] বাংলা ভাষায় তুলনা মূলক সাহিত্যলোচনার প্রথম দৃষ্টান্ত কোনটি ?

উঃ বাংলা ভাষায় তুলনা মূলক সাহিত্যলোচনার প্রথম দৃষ্টান্ত – শকুন্তলা, মিরান্দা ও দেসদিমোনা

৪৯] “এ গ্রন্থে আমি তাহার কেবল মানব চরিত্রেরই বর্ননা করিব” কোন প্রবন্ধে বঙ্কিমচন্দ্র একথা বলেন ?

উঃ কৃষ্ণচরিত্র

৫০] বঙ্কিমের প্রথম ও দ্বিতীয় প্রকাশিত প্রবন্ধ কী ?

উঃ বিবিধ সমালোচনা (১৮৭৬) এবং সাম্য (১৮৭৯)

অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক সদস্যকে ধন্যবাদ

Leave a Reply