কর্তার ভূত ও অন্যান্য পাঠ (দ্বিতীয় পর্ব)

পশ্চিমবঙ্গ এসএসসি পরীক্ষা র জন্য নির্দিষ্ট সিলেবাস ধরে ফেসবুক গ্রুপ ‘টার্গেট বাংলা’য় যে আলোচনা বা গ্রুপ ডিসকাশন হয় তা থেকেই নির্বাচিত প্রশ্নের সংকলন আজকের এই পোষ্ট – প্রশ্নোত্তরে একাদশ শ্রেণি পাঠ্যপুস্তক  – কর্তার ভূত ও অন্যান্য পাঠ (দ্বিতীয় পর্ব) । পাঠক পাঠিকা বা ছাত্রছাত্রীরা এই আলোচনা থেকে তাদের প্রয়োজনীয় প্রশ্নোত্তর পেতে পারবেন।

কর্তার ভূত ও অন্যান্য পাঠ্য (দ্বিতীয় পর্ব)

৬৮. পাঠ্য “কর্তার ভূত” কয়টি পরিচ্ছেদ আছে?
উ:- ৬ টি।

৬৯. কী নইলে ছন্দ মেলে না?
উ:- বর্গী এল দেশে।

৭০. ‘অজগর পুরী’- কোনটিকে বলা হয়েছে ?
উ:- যামিনীদের বাড়িকে।

৭১. তেলেনাপোতা আবিষ্কারের নায়ক কোথাকার?
উ:- কলকাতার।

৭২. ঝোড়ো হাওয়া কোথা থেকে আসে?
উ:- শ্মশান মশান থেকে।

৭৩. যামিনীর হাসি কে কিসের সাথে তুলনা করা হয়েছে?
উ:- শরতের শুভ্র মেঘের সাথে।

৭৪. “তারা একবাক্যে শিখা নেড়ে বলল”– কারা?
উ:- শিরোমণি চুড়ামণিরা।

৭৫. জাহ্নবী নদীর অন্য একটি নাম বলুন।
উ:- গঙ্গা।

৭৬. কোন শহরে গ্যালিলিওর জন্ম হয়?

উ:- পিসা।

৭৭. “ওঃ সেই খেয়াল এখনো!”—–কার কোন খেয়ালের কথা বলা হয়েছে?
উ:- নিরঞ্জনের সাথে যামিনীর বিয়ের খেয়াল।

৭৮. ডাকাতের মায়ের নাতিটির বয়স কত?
উ:- ৪/৫।

৭৯. ‘নীলধ্বজের প্রতি জনা’ পত্রটিতে অর্জুনের অন্য কি কি নাম ব্যবহার করা হয়েছে?

উ:- ফাল্গুনী, কিরীটী, পার্থ।
৮০. তক্তা পোশের একদিকে যামিনী কোন মূর্তির মত দাঁড়িয়ে আছে ?

উ:- পাথরের।

আরোও পড়ুন

৮১. “এই কি রে ছিল তোর মনে”– তোর বলতে কাকে বোঝানো হয়েছে?
প্রবীর।

৮২. কী শুনে কঙ্কালের মধ্যে চাঞ্চল্য দেখা দেবে?
উ:- পদশব্দ।

৮৩. আমি জানতাম তুই না এসে পারবি না–বক্তা কে?
উ:- যামিনীর মা।

৮৪. নীলধ্বজের প্রতি জনায়–শিখণ্ডী কে?
উ:- দ্রুপদ কণ‍্যা বা দ্রৌপদীর বড় বোনও।

৮৫. তেলেনাপোতার স্মৃতি কিসের মতো উজ্জ্বল হয়ে আছে?
উ:- অন্তরঙ্গ একটি তারার মত।

৮৬. মানুষের মৃত্য আছে কার মৃত্যু নেই?
উ:- ভূতের।

৮৭. ‘তেলেনাপোতা আবিষ্কার’ গল্পে ‘ঘরের অধিকার নিয়ে আপনাদের সঙ্গে সমস্ত রাত বিবাদ করবে’– কে?
উ:- চামচিকা।

৮৮. “দেশের লোক ভারি নিশ্চিন্ত হল” -কারণ?
উ:- মানুষের মৃত্যু থাকলেও ভূতের কোন মৃত্যু নেই।কর্তা ভূত হয়ে তাদের ঘাড়ে থাকলে তাই কোনো ভাবনা থাকবে না।

৮৯. _________ ব্যাস বিখ্যাত জগতে. শূন্যতা পূরন কর।
উ:- সত্যবতীসূত ব্যাস।

৯০. “শাশুড়ির যোগ্য বধূ! পৌরব সরসে নলিনী! অলির সখী, রবির অধীনী, সমীরন প্রিয়!– কার নিয়ে বলা হয়েছে?
উ:- দ্রৌপদী।

৯১. ভোজরাজের কন্যা কে?
উ:- কুন্তী।

৯২. ‘প্রবুদ্ধমিব সুপ্তঃ’ কথার অর্থ?
উ:- জ্ঞানীরা ঘুমিয়ে থাকো।

৯৩. দুটো- একটা মানুষের সাথে কর্তার কখন কথা হয়?
উ:- গভীর রাতে।

৯৪. ‘তেলেনাপোতা আবিষ্কার’- গল্পে অট্টালিকার জানালা কেমন ছিল?
উ:- চক্ষুহীন কোটরের মতো পাল্লাহীন জানালা।

৯৫. নীলধ্বজের প্রতি জনা র সঙ্গে মহাভারতের কোন পর্বের সম্পর্ক আছে?
উ:- অশ্বমেধ পর্ব।

৯৬. তেলেনাপোতা যাওয়ার উদ্দেশ্য কী?
উ:- মাছ ধরা।

৯৭. গোরুর গাড়ি কোন দেশ থেকে এসেছে?
উ:- বামনের দেশ।

৯৮. যামিনীর কলসি কিসের তৈরি?
উ:- পিতল।

৯৯. মাছ ধরার পুকুরের জল কী রঙের ছিল?
উ:- সবুজ।

১০০. “বেহুঁশ যারা তারাই পবিত্র”—–কথাগুলি কাদের?
উ:- শিরোমণি চূড়ামণির দল।

আরোও পড়ুন

১০১. সুক্ষ বিবেচক তুমি বিখ্যাত জগতে-কার কথা বলা হয়েছে?
উ:- নীলধ্বজ।

১০২. আনায় মাঝারে-আনায় কথার অর্থ কি?
উ:- ফাঁদ।

১০৩. মূল মহাভারতের লেখক কে কোন ভাষায় লিখেছিলেন?
উ:- বেদব্যাস।। সংস্কৃত।

১০৪. ‘নীলধ্বজের প্রতি জনা’ কোন ছন্দে লেখা?
উ:- অমৃতাক্ষর।

১০৫. রাজতোরণে কি বাজছে?
উ:- রনবাদ্য।

১০৬. আকাশে কি উড়ছে?
উ:- রাজকেতু।

১০৭. যামিনীর যার সাথে বিবাহের কথা ছিল তার নাম কি?
উ:- নিরঞ্জন।

১০৮. ‘তেলেনাপোতা আবিষ্কার করতে হলে ‘ বেরোতে হবে কখন?
উ:- বিকেলবেলায় পড়ন্ত রোদে।

১০৯. “তারই পাশে বেশ বিশালায়তন একটি জীর্ণ অট্টালিকা… দাঁড়িয়ে আছে।”– কার পাশে?
উ:- পুকুরের পারে।

১১০. গাড়োয়ান কত কলসি জল নিয়ে আসে?
উ:- ৩।

১১১. “মনে হবে বোবা জঙ্গল থেকে কে যেন অমানবিক এক কান্না নিংড়ে নিংড়ে বার করছে। “— এই কান্নার উৎস কী?
উ:- গোরুর গাড়ি।

১১২. তেলেনেপোতা অবিস্কার গল্পে রামায়ণের কোন চরিত্রটির উল্লেখ আছে?
উ:- কুম্ভকর্ণ।

১১৩. কার জননী ধীবর?
উ:- ব্যাসদেব।

১১৪. খাণ্ডব দহন কার সাহায্যে হয়েছিল?
উ:- কৃষ্ণ।

১১৫. বামনের দেশ কোথায় অবস্থিত বলে গল্পকার মনে করেন?
উ:- পাতাল।

১১৬. “তারা ভয়ঙ্কর সজাগ আছে”–কারা?
উ:- পৃথিবীর অন্য দেশগুলোর মানুষেরা।

১১৭. “আপনি শুধু নিজের হৃৎস্পন্দনে একটি কথাই বার বার ধ্বনিত হচ্ছে শুনবেন,”–কী কথা?
উ:- ফিরে আসবো।

১১৮. ‘নীলধ্বজের প্রতি জনা’ কবিতায় যমদণ্ডের সঙ্গে কীসের তুলনা করা হয়েছে?
উ:- হাতির শুঙ্গ আস্ফালনের।

১১৯. ‘নীলধ্বজের প্রতি জনা’ কবিতায় ‘কৃতান্তনগর’ বলতে কি বোঝানো হয়েছে?
উ:- যমালয় বা যমপুরী।

১২০. তেলেনাপোতা আবিষ্কার করতে হলে প্রথমে উঠতে হবে?
উ:- বাসে।

আরোও পড়ুন

১২১. কদুচোর দের কত মাসের সাজা হয়?
উ:- ২ / ৩ মাসের।

১২২. দারোগা পুলিশ দেখে বুড়ির কী কেঁপে ওঠে?
উ:- বুক।

১২৩. ব‌র্গির দ‌লের বি‌শেষণ হি‌সে‌বে কী বলা হ‌য়ে‌ছে?
উ:- উপস্থিততম।

১২৪. আগে ভাগে ভূতে পেয়ে বসেছে কাকে?

উ:- ওঝাতে।
১২৫. “সেইখানেই তো ভূত।”– গল্প অনুযায়ী কোথায় ভূত?

উ:- ভয়ের মধ্যে।
১২৬. শুনে তারও মনে দুঃখ হল — কার কথা বলা হয়েছে?

উ:- বুড়ো কর্তা।
১২৭. কাকে মানলে কোনো ভাবনা নেই?

উ:- ভূত।

১২৮. ‘তেলেনাপোতা আবিষ্কার’ গল্পে “আপনাকে লজ্জা দেবার নিস্ফল চেষ্টা ত্যাগ করে অনেক আগেই উড়ে যাবে”- কী?
উ:- মাছরাঙা।

১২৯. ত্রটা ভূতের দোষ নয়, ভূতূড়ে দেশের দোষ নয়, –কার দোষ?
উ:- বর্গির।

১৩০. তেলেনাপোতা গল্পে কী বারের কথা বলা হয়েছে?
উ:- মঙ্গলবার।

১৩১. ‘পাঁক’ কার লেখা উপন্যাস?
উ:- প্রেমেন্দ্র মিত্র।

১৩২. ‘বেনামি বন্দর ‘কত সালে প্রকাশিত হয়?
উ:- ১৯৩০।

১৩৩. প্রেমেন্দ্র মিত্রের লেখা প্রথম ছোট গল্পের নাম কী? কোন পত্রিকায় সেটি প্রকাশিত হয়?
উ:- ‘শুধু কেরানী’। ১৩৩০ বঙ্গাব্দে প্রবাসী পত্রিকায়প্রকাশিত হয়।

১৩৪. তেলেনাপোতা গল্পে নায়কের কতজন বন্ধু কথা বলা হয়েছে?
উ:- ২ জন।

প্রশ্ন এবং উত্তর গুলি আলোচনায় উঠে আসা তথ্যের ভিত্তিতে সংগৃহীত। এর সত্যতা যাচাই করা হয়নি। তাই এর সত্যতার দায় সংগ্রহাক. সংগ্রাহিকা কিংবা ‘টার্গেট বাংলা’ কারোরই নয়।

Leave a Reply