এসএসসি পরীক্ষা – প্রশ্নোত্তরে দশম শ্রেণি পাঠ্যপুস্তক

পশ্চিমবঙ্গ এসএসসি পরীক্ষা র জন্য নির্দিষ্ট সিলেবাস ধরে ফেসবুক গ্রুপ ‘টার্গেট বাংলা’য় যে আলোচনা বা গ্রুপ ডিসকাশন হয় তা থেকেই নির্বাচিত প্রশ্নের সংকলন আজকের এই পোষ্ট – প্রশ্নোত্তরে দশম শ্রেণি পাঠ্যপুস্তক । পাঠক পাঠিকা বা ছাত্রছাত্রীরা এই আলোচনা থেকে তাদের প্রয়োজনীয় প্রশ্নোত্তর পেতে পারবেন।

এসএসসি পরীক্ষা – প্রশ্নোত্তরে দশম শ্রেণি পাঠ্যপুস্তক

১. শাবলতলার মাঠ- গদ্যাংশে গল্প কথকের কত বছর বয়সের কথা মনে পড়েছে?
উঃ ১১ বছর।

২. “আপনার বয়স কত মাস্টারমশাই”- বক্তা কে?
উঃ সারদা।

৩. সেইটেই বেশি করে মনে আছে। –কার কথা বলা হয়েছে?
উঃ তেলে জলে পাকানো বেত।

৪. তিনপাহাড়ের কোলে স্টেশনটি কেমন ছিল?
উঃ জনমানব বিহীন।

৫. “তিন পাহাড়ের কোলে” কবিতায় ‘কাঁদড়’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। শব্দটির অর্থ ও বুৎপত্তিগত অর্থ বলুন।
উঃ ‘কাঁদড়’ শব্দের অর্থ পাহাড়ের গুহা। কথাটি এসেছে সংস্কৃত ‘কন্দর’ শব্দটি থেকে। এই দেশজ শব্দটি ঝাড়খণ্ড অঞ্চলের মানুষেরা তাদের মৌখিক ভাষায় ব্যবহার করে থাকেন। এর থেকে এটা অনুমান করা যায় কবি এবং তাঁর বন্ধুরা কোন অঞ্চলে প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করতে পথ হারিয়ে ছিলেন।

৬. কোন কাব্যগ্রন্থের জন্য আলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত সাহিত্য একাডেমী পুরস্কার পান?
উঃ ‘মরমী করাত’।

৭. উমাচরণ তার স্কুলের বাচ্চা দের নিয়ে কোথায় পরীক্ষা দিতে নিয়ে গিয়েছিলেন?
উঃ রানাঘাটে ।

৮. —– করে বাঁচা কি আর খাঁচাতে সম্ভব? ( শূন্যস্থান পূরণ)
উঃ সহজ করে।

৯. মাস্টারমশাই কজনকে পরীক্ষা দিতে নিয়েগিয়েছিলেন???
উঃ ৪জন ।

১০. তপনের জীবনে সবচেয়ে সুখের দিনটি কবে এসেছিল?
উঃ যেদিন মেসো ও মাসি সন্ধাতারা পত্রিকা নিয়ে বেড়াতে এসেছিল।

১১. কার মা নাড়ু করে দিয়েছিল?
উঃ কানাই।

১২. তিনপাহাড়ের কোলে কবিতায় ‘গাঁ’ -এর কি উপমা ব্যবহৃত হয়েছে?
উঃ শক্ত সবুজ।

১৩. ‘রত্নের মূল্য জহুরীর কাছে ই’-এখানে রত্ন এবং জহুরী কে কে?
উঃ রত্ন – তপনের লেখা, জহুরী – মেসো ।

১৮. বড্ড পন্ডিত হয়েছিস তুই – কার উক্তি?
উঃ পিসিমা ।

১৫. তপনের মেসো কী খায়?
উঃ কফি।

১৬. লেখকের বড়ো মামা উমাচরন কে কী বলে ডাকতেন?
উঃ দাদা।

১৭. ছেলেবেলায় লেখক পিসিমার বাড়ি থেকে কোন স্কুলে পড়তেন?
উঃ দূর্গাপুর উচ্চ প্রাইমারি বিদ্যালয়ে।

১৮. কন্ট্রাক্টর জাতিতে কী ?
উঃ পাঞ্জাবী।

১৯. তিনপাহাড়ের কোলে বনভূমির কাছেই কি কি রয়েছে?
উঃ মনভুমির দয়।

২০. তপনের চিরকালের বন্ধু কে?
উঃ ছোটো মাসি।

২১. কে বলেছিলেন উমাচরণ বাবু আপনি কালে গিরিশ ঘোষের সমান লেখক হবেন?
উঃ গোবরডাঙার সেজো বাবুর শালা।

২২. পিসিমা আক্কেলগুড়ুম বইয়ের বদলে কি বই আনতে বলেছিলেন?
উঃ কৃষ্ণের শুনলাম।

২৩. ‘জ্ঞানচক্ষু’ কোন গল্প সংকলন থেকে নেওয়া?
উঃ ‘কুমকুম’।

২৪. দুঃখ হল দেখে।— কি দেখে দুঃখ হয়ে ছিল?
উঃ শাবল তলার মাঠ একেবারে ধ্বংস হয়ে গেছে

২৫. কথকের মতে উমাচরণ মাস্টারের বয়স কত?
উঃ চল্লিশ বছর এর উপর।

আরো পড়ুন

২৬. উমাচরণ মাষ্টার কী লিখতেন ?
উঃ প্রহসন।

২৭. উমাচরণ মাষ্টার কখন চারটি ছেলেকে রানাঘাটে নিয়ে গিয়েছিলেন? আর এই চারটি ছেলেকে কে কে?
উঃ অপরাহ্ন  ।কানাই, লেখক, সতু ও সারদা।

২৮. মাষ্টার মশাই এর ধুতি কয়টি ?
উঃ দুটি।

২৯. কবি কোন সময়ে ট্রেন থেকে নামলেন?
উঃ সন্ধ্যা বেলায়।

৩০. কীসের মত কাঁপতে কাঁপতে ঢুকতে হবে হলঘরে?
উঃ নবমী পাঁঠার মতো।

৩১. কথকদের বোঁচকাতে কী কী ছিল ?
উঃ বই-দপ্তর,কাপড় গামছা ও কাঁথা।

 

৩২. তিন পাহাড়ের কোলে কবিতাটির মূল কাব্য গ্রন্থের নাম কী? (জানতে চাই)
উঃ ধর্মে আছি জিরাফেও আছি।

৩৩. ঝোপে ঝোপে কোন কোন পাখির কলরব ছিল?
উঃ শালিক , ছাতারে।

৩৪. উমাচরণ মাস্টার এর মুখে কিসের দাগ?
উঃ বসন্তের।

৩৫. ‘__ পথের নাম ভুলে।’ (শূন্যস্থান পুরন)
উঃ দেহাতি।

৩৬. তিন পাহাড়ের কোলের রং কেমন ?
উঃ সবুজ।

৩৭. বুধুযার নিকানো নরম উঠোনে কোন রঙের পাখি দলে দলে আসে?
উঃ নীল।

৩৮. বুধুয়ার নিকানো নরম উঠোনে পাখি কী খেয়ে যায়?
উঃ ধান।

৩৯. মাস্টারমশাই এর হুঁকোটি কোথায় রাখা থাকত?
উঃ দেওয়ালে পেরেছেন।

৪০. ‘পৃথিবীতে এমন অলৌকিক ঘটনাও ঘটে’- ঘটনাটি কি?
উঃ তপনের লেখা হাজার ছেলের হাতে হাতে ঘুরবে।

৪১. বধুয়া অবাক হয়ে কোথায় হাঁটে?
উঃ রিখিয়া ছেড়ে বাবুডির মাঠে।

৪২. ছোট মাসির সঙ্গে তপনের বয়সের পার্থক্য কত?
উঃ আট বছর।

৪৩. “বাবা তোর পেটে পেটে এত! ” কে বলেছিল? ( জ্ঞানচক্ষু)
উঃ তপনের মা।

৪৪. তপনের গল্পটি কোন পত্রিকায় ছাপা হয় ?
উঃ সন্ধ্যাতারা।

৪৫. “যেন নেশায় পেয়েছে “– কাকে কি নেশায় পেয়েছে? ( জ্ঞানচক্ষু)
উঃ তপনকে, গল্প লেখার।

৪৬. আমি নতুন দৃষ্টি পেলাম সেই দিনটিতে – কোন দিন?
উঃ উচ্চ প্রাইমারি পরীক্ষার দিনটিতে।

৪৭.  ‘তা ওরকম একটি লেখক মেসো থাকা মন্দ নয়’ —কার উক্তি ?
উঃ মেজোকাকু।

৪৮. কীসের থলি ভর্তি টুকিটাকি জিনিস?
উঃ চটের।

৪৯. ‘ক্রমশ ও কথাটাও ছড়িয়ে পড়ে’-কোন কথাটা?
উঃ কারেকশনের ।

৫০. “পৃথিবীতে এমন অলৌকিক ঘটনাও ঘটে।”– অলৌকিক ঘটনাটি কি? ( জ্ঞানচক্ষু)
উঃ তপনের লেখা গল্প সন্ধ্যাতারা পত্রিকায় ছাপা হয়েছে।

তথ্যসংগ্রহ – চৈতন্য দাস

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 − 2 =