ইন্টারভিউ – কিছু টিপস

ইন্টারভিউ – কিছু টিপস এই আলোচনায় পাবেন ইন্টারভিউ দিতে গেলে আপনি কী করবেন, কী করবেন না। ইন্টারভিউয়ের কোন নির্দিষ্ট সিলেবাস নেই তা আমাদের প্রত্যেকের জানা। যেকোন ক্ষেত্র থেকেই প্রশ্ন হতে পারে। কোন ক্ষেত্র থেকে আপনাকে প্রশ্ন করা হবে তা নির্ভর করছে প্রশ্নকর্তার উপর। তবে যে পরীক্ষার্থী যে বিষয় নিয়ে পড়াশোনা করেছেন সেই বিষয় থেকে কিছু প্রশ্ন করা হবে এটা আশা করাই যায়। যদিও দু এক ক্ষেত্রে সামান্য কয়েকটা সৌজন্যমূলক প্রশ্ন করেই ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে ঘাড়াবার কিছু নেই। ইন্টারভিউ বোর্ডে প্রশ্নকর্তারা যথেষ্ট সহযোগীতা করে থাকেন।

টিপস

যারা ইন্টারভিউ দিচ্ছেন তারা বিষয়গত পড়াশোনার পাশাপাশি কিছু সাধারণ জিনিসও আয়ত্ত করে রাখবেন। এখন একঝলক দেখে নিন, কোন কোন বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে আপনাকে।

১] আপনার নামের অর্থ এবং ব্যাকরণগত কিছু দিক যেমন – সন্ধি, সমাস, প্রত্যয় ইত্যাদি। আপনার নামে কোন চরিত্র আছে কিনা, কোন রচনায় ? ইত্যাদি।

২] বাংলা নিয়ে কেন পড়লেন ? এক্ষেত্রে কোন বই থেকে মুখস্থ করা উত্তর কাম্য নয়। উত্তর দেবেন নিজের অনুভূতি আর যুক্তি দিয়ে।

৩] শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে বেছে নিচ্ছেন কেন ? এক্ষেত্রেও উত্তর দেবেন নিজের অনুভূতি আর যুক্তি দিয়ে।

৪] আপনার জেলা, ব্লক, থানা, শহর বা গ্রাম সম্পর্কে কিছু তথ্য যেমন বিভিন্ন আধিকারিকের নাম। জেলার ডি এম, সভাধিপতি, গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের নাম। বিডিও, এস ডি ও আপনার এলাকার এমএলএ, এমপি এঁদের নামও জেনে রাখুন। আপনার এলাকার কোন ঐতিহাসিক তথ্য থাকলে জেনে রাখুন। আপনার জেলার কোন কবি সাহিত্যিকের নাম ও সেই কবি বা সাহিত্যিকের রচনার নাম জানতে হবে।

৫] পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, আলিপুরদুয়ার, ঝাড়গ্রাম জেলার ছাত্রছাত্রীরা জেনে রাখুন কবে আপনার জেলাটি গঠিত হয়েছে। যুক্তি তৈরী রাখুন – ‘আপনি এই জেলাবিভাগে সম্মত কিনা’?

৬] আপনার হবিযা কিছু হতেই পারে। তবে এমন কিছুই বলা উচিত যাতে আপনার সত্যিকারের দখল আছে কিংবা যেখান থেকে আপনাকে প্রশ্নবাণে জর্জরিত করা সহজ নয়

৭] বিষয়গত পুরনো পড়া ঝালিয়ে নিন। বিদ্যালয়ের পাঠ্য বইগুলোর সিলেবাস জেনে রাখুন। রচনাগুলির লেখক ও উৎস জানতে হবে।

৮] যারা আপনার পরিচিত শিক্ষক বা শিক্ষিকা তাদের সঙ্গে আলোচনা করে আপনার কনফিউসনের জায়গা গুলি দূর করুন। একটু সময় নিয়ে তাদের ইন্টারভিউয়ের অভিজ্ঞতা শুনুন।

৯] বিদ্যালয়ে প্রচলিত নানা প্রকল্পগুলি সম্পর্কে জেনে রাখুন

১০] নিয়মিত খবরের কাগজে চোখ রাখুন। শিক্ষা সংক্রান্ত নানা আপডেটের পেপার কাটিং করুন আর নিয়মিত দেখুন।

By Nilratan Chatterjee, Editor, “SSC Target – SLST Bangla”, Published by Progressive publisher

2 Comments

  • Khub valo akta proyas…ate sudhu ami noy amader moto onk onk chhele meyer upokar hochhe r ageou hobe.oneker samortho thake na tution newar..tader pokkhe to khubi upokari…sb theke boro bapar hlo j akhn to maximum chhele meye facebook kore time nosto korchhe ..to seta aktu holeou valo kajei koruk…ate fb r pasapasi porasona korar sujog o hochhe..facebook k kendro kora porasona korar chinta vabna aapnader age keou korechhen kina jani na…aamr mone hoy aapanarai er prothom dishari…atike aaro unnoto korar chesta korun…tahole aamra aro besi upokrito hobo…thank u sir

Leave a Reply